আলফ্যান্সো সংবাদ

আম রসে সিক্ত হোক রসনা। আম জীবন হোক  আমের সুবাসে আমোদিত। আম আস্বাদনের সময় উপস্থিত। পশ্চিম ভারতের বাজারে  বাক্সবন্দী হয়ে আলফ্যান্সো আম  হই হই করে ঢুকতে শুরু করেছে।হই হই করেই বটে । কারণ প্রায় ২০/২৫  দিন আগে থেকেই বন্ধুবান্ধব যাদের রত্নাগিরি  বা কোঙ্কণে আমবাগান আছে বা ব্যবসায়ীরা দেখা হলেই বলে রাখছে এবার আমরা  খুব ভাল আম আনছি, নিলে বোলো। আমের দেশের মানুষ আমরা। বাজারে গিয়ে পাঁচ ছয়টা রকমের আম দেখে, গন্ধ শুঁকে, উল্টেপাল্টে আম কেনা , তার জন্যে আগাম বলা কওয়ার প্রয়োজন পরে না।কিন্তু আলফ্যান্সো বলে কথা!ডজন হিসাবে বিক্রিবাট্টা। তদুপরি গলা কাটা দাম।  এক ডজন  আমের দাম ৩০০/৪০০  টাকা থেকে শুরু দেড় দুহাজার  বা আরোবেশি( অনলাইনেও   নানা  দর)।

ফল বিক্রেতারা   ছোট বড় অস্থায়ী স্টলে   খড় বিছানো কাগজের বাক্সে আলফ্যান্সো বা “হাপুস” সুন্দরী কে নিয়ে বেশ সাজিয়ে গুছিয়ে  বসছে । সুন্দরী ই বটে । আরবসাগরের  কোলে বেড়ে ওঠা এই পশ্চিমী কন্যার রূপ যে সহজে নষ্ট হয়না! বহুদিন অটুট থাকে এর সৌন্দর্য । স্বাদের নয়,এর কৌলীন্য texture এ।বেশ একটা  ছিমছাম ,কেতাদুরস্ত  সাহেবি বুনট। ঘেঁটে ঘ   কখনই না , গন্ধে ম ম করার সেই ব্যাপারটা ও  তো মালুম পড়েনা ! মিষ্টতা ও আহামরি কিছু নয়। তবু এত মাতামাতি কেন ! কেনই বা তার এত দাম ! এ আমার কাছে  রহস্যই থেকে  যেত যদি না এই আমের  বাজারে এসে  পৌছনোর পেছনে  মেহনতের হিসেব পেতাম। সে কথায় পরে আসছি।পূর্ব ভারতীয় ল্যাংরা,মালদা, দশেরি বা চউসা তো এর তুলনায় অনেক স্বাদু  আর মিষ্টি। দাম ও ধরা ছোঁওয়ার মধ্যে। আর খেলেও মনে হয় -আহা কি তৃপ্তি ! কিন্তু আলফ্যান্সো আমে সেই আমেজ কই! অবশ্য সেই অনন্য অসাধারন স্পেশাল  প্রজাতির  আলফ্যান্সো তো রপ্তানি ই হয়ে যায়। শুনেছি তার স্বাদ সত্যিই স্বর্গীয়! তবু  এই আম উৎসবের  সময় লোকজন নিজের ঘরের  জন্যে তো কিনছেই  , সেই সঙ্গে  লৌকিকতার  পাট ও চুকিয়ে নিচ্ছে।

আমের ইতিহাস খুঁজতে গিয়ে জানলাম আম এসেছে দক্ষিন এশিয়া থেকে  আর  ভারতে আমের প্রবেশ উত্তর পূর্ব দিক হতে।তারপর ক্রমশ দক্ষিন ভারতের দিকে যাত্রা। পর্তুগীজ  জেনারেল আফান্সও ডে আলবুকারকির হাত ধরে পর্তুগীজ উপনিবেশ  স্থাপনের পরে  ভারতে প্রথম আমের কলম  করা  শুরু হয় আর ধীরে ধীরে আলফ্যান্সো  প্রজাতির  মত আম মহারাষ্ট্রের  কোঙ্কণ এলাকা, গুজরাট আর দক্ষিণ ভারতে রোপন করা হয়। এখন রত্নাগিরি আর কোঙ্কণের বিস্তীর্ণ এলাকায় সেই  আলফ্যান্সো আমের বাগান হয়েছে। সে রকমই এক বাগানের আম হল দেবগড় আলফ্যান্সো আম। আমাদের ফলওয়ালা খুব জোরাজুরি করে সেদিন বলল, ম্যাডাম নিয়ে যান, এ আমের তুলনা নেই। গ্যারান্টি দিচ্ছি।  গুগলীও দোষে দুষ্ট  মন তৎক্ষণাৎ খোঁজ নিতে বসে গেলাম দেবগড় আম্র ইতিহাস সন্ধানে। অনেক কিছু জানতে পারলাম আলফ্যান্সো আমের বিষয়ে। http://devgadmango.com/devgad-mango-journey/ পড়ে দেখতে পারেন  আম জীবনযাত্রার কাহিনী, সেই সঙ্গে   রপ্ত করে নিন খাঁটি  আলফ্যান্সো আম চেনার কৌশল ।

Advertisements

2 Comments Add yours

  1. …. good to know information and that too very well presented. Faazli aam er khoj niye arekta piece hoye jak…. aha shei swyad o bholar noi

    Like

  2. jayatisblog says:

    🙂 thank you Suman.. ফজলী ! দেখি আমদানি করতে পারি কিনা, পরের মরশুমে আশা করি 🙂 🙂

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s